ঘর যখন শীতল, স্নিগ্দ

ঘর-দোর

যে ক’দিন বৃষ্টি হচ্ছে, বাইরের আদ্র আবহাওয়ায় ঘরের ভেতরটাও থাকছে কিছুটা শীতল৷ তবে, তার মাঝে মাঝেই দহনও কিন্তু কম যাচ্ছে না৷  বাইরে বাতাস কম, এদিকে আবার ফ্যানের হাওয়াতেও লু ভাব৷ ঘরের দেয়াল, এমনকি বিছানা থেকেও যেন তাপ বের হয়৷ কঠিন এই পরিস্থিতি থেকে বাঁচার ও ঘর ঠান্ডা রাখার সহজ কয়েকটি কৌশল যেন সোনায় সোহাগা৷

কর্পূর জলের মিশ্রণ ঘর শীতল রাখতে বেশ সহায়ক৷ স্প্রে বোতলে ভরে ঘরের পর্দায় স্প্রে করতে পারেন৷ ঘর ঠান্ডা থাকবে৷ জলের সঙ্গে গোলাপজল মিশিয়েও স্প্রে করা যায়৷ এতে সুগন্ধ ছড়ানোর পাশাপাশি ঘর গরমেও শীতলতা অনুভব হবে৷ ঘরের পর্দাগুলো হালকা ভেজা ভেজা হয়ে থাকলে ফ্যানের বাতাস ঠান্ডা বোধ হয়৷ আবার ফ্যান না থাকলে বাইরের বাতাসেও ঘর ঠান্ডা থাকে৷

এছাড়া মাটির পাত্রে ঘরের কোণে রাখতে পারেন কিছুটা জল৷ কিছু ফুল ভাসিয়ে দিলে দেখাবেও সুন্দর৷ মাটির পাত্রে রাখা জলে ঘরও থাকবে ঠান্ডা৷

বিছানাপত্রে সুতির ব্যবহার আরামদায়ক হতে পারে৷ হালকা রঙের সুতির বিছানার চাদর, পিলো-কভার দৃষ্টিতে স্বস্তি যোগাবে৷ মনের শীতলতা গায়েও মেখে নেয়া সহজ হবে৷

7 thoughts on “ঘর যখন শীতল, স্নিগ্দ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *